ভাঙা পথের রাঙা ধূলা 

এস.কে.এম মিজানুর রহমান 

ওইখানে তে লাটিম তলার তলে
পৃথিবীটা ঢলে পড়ে কৌশলে
নিত্ত যখন নিত্ততা ছুঁতে যায়
কৌশিক বন মধুময় সুবাস পায়।

তৈলের সাথে তুষার কণা ঝরে
টইটম্বুর পৃষ্ট হয়, ডরে
হারিয়ে যাওয়া মানবজাতির জন্য
ধরণী ক্রন্দন সম খোঁজ করতেই হন্য
এই সেই আবাল কালের কান্তার গতি
পালিত হয় সেই কান্নার আরতি

জুড়ে গিয়ে যুগ্ম সরস
অনাহারে মরে পড়স
তারপরও চেষ্টায় থাকি
রক্ষাবন্ধনে- পরাবার লেগে রাখি
কে খেল না তা দেখতে মানা
সমাজ নামের কিট সেজে খুঁজি নিয়মের আনাগোনা।

এই করে যায় যতদিন
সভ্যতার সভাপতি চেয়ে টুটাব ভূ-টাই হচ্ছে বিলীন•••••

 

.

জিভ হয় জলাকীর্ণ // সুব্রত মজুমদার 

ও বৌ আবার লুচি ভাজবে কবে ?
ফুলকো ফুলকো গরম লুচি খেয়ে বাঁচে খাঁদা-পেঁচি
আমার ইচ্ছে করে দু’গণ্ডা খাই, – কোন আবাগী বাধা দেবে !
লুচির সাথে বেগুন ভাজা খায় না যে তার কেমন বাঁচা ?
ও তার ভবে আসা হল মিছা, উপরে কি সে জবাব দেবে ?
ও বৌ তোমার বাপের কিরে তেলে লুচি দাওনা ছেড়ে
খেজুরের গুড় আছে ঘরে, না থাকলে দোকানে যাব।
মেখে জলে গোধূমচূর্ণ গড়ে লেচি তেলাকীর্ণ
জিভ হয় জলাকীর্ণ, সুব্রত আর ক’টা খাবে  ?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *